৭৫ বছর বয়সে প্রয়াত হলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শরদ যাদব

৭৫ বছর বয়সে শুক্রবার প্রয়াত হলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শরদ যাদব|দীর্ঘদিন ধরেই কিনডির সমস্যায় ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার নিজের বাড়িতেই অচৈতন্য হয়ে পড়েন এই তিনি। হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁর মৃত্যু হয় এই বর্ষীয়ান নেতার।

আরো পড়ুন-‘কোন ববি কে টানলে কোন ববি নড়ে যাবে,সেটা আগামি দিনে বোঝা যাবে’:কাকে খোঁচা দিলীপের?

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মৃত্যুর সংবাদ ট্যুইট করে জানালেন মেয়ে সুভাষিণী যাদব।শরদ যাদবের প্রয়াণে শোক প্রকাশ করে টুইট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়|উল্লেখ্য,১৯৮৯ সালে ভি পি সিং প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর সেই মন্ত্রিসভার সদস্য হন শরদ যাদব।অটল বিহারী বাজপেয়ী সরকারের মন্ত্রীও হন তিনি।

আরো পড়ুন-সৌমিত্র খা-র বিতর্কিত মন্তব্যের সমালোচনা করলেন খাদ্যমন্ত্রী

১৯৭৪ সালে প্রথম বার লোকসভার সাংসদ নির্বাচিত হন শরদ। জবলপুর থেকে জয়লাভ করেন তিনি উপনির্বাচনে।জয়প্রকাশ নারায়ণের হাত ধরেই শরদকে রাজনীতিতে আসা। ১৯৭৭ সালে ফের জবলপুর থেকে জয়ী হন শরদ।বিজেপি-র হাত ধরলে নীতীশ কুমারের সংযুক্ত জনতা দলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন হয় শরদের। তার পর ২০১৮ সালে নিজের দল লোকতান্ত্রিক জনতা দল গঠন করেন শরদ। অল ইন্ডিয়া ব্যাওকওয়ার্ড (SC/ST/OBC) অ্যান্ড মাইনরিটি কমিউনিটিজ এমপ্লয়িজ ফেডারেশনেরও প্রতিষ্ঠাতা শরদ।১৯৯১, ১৯৯৬, ১৯৯৯, ২০০৯ সালে মধেপুরার আসন থেকে জয়ী হন। ১৯৯৮ এবং ২০০৪ সালে তাঁকে পরাজিত করেন লালুপ্রসাদ যাদব। পরে লালুর রাষ্ট্রীয় জনতা দলের টিকিটেও ভোটে দাঁড়ান ওই কেন্দ্রে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *