১১ মাসের শিশুর মাথায় আটকে গেল হাঁড়ি,হাসপাতাল ও ফায়ার ব্রিগেডেরের প্রচেষ্টায় বেরোলো হাঁড়ি

শিশু মন বোঝেনা বারণ, খেলতে খেলতে হঠাৎ ১১ মাসের ছোট্ট দেবরাজের মাথায় আটকে গেল হাঁড়ি|ঘটনাটি ঘটেছে কালোপুর বিশ্বাস পাড়া এলাকায়| বাড়ির লোক প্রথমে বুঝতে পারেননি, তারপর দেখেন বাচ্চার মাথায় আটকে আছে হাঁড়ি| বাড়িতে দীর্ঘক্ষন চেষ্টা করার পর বের করা যায়নি ওই হাঁড়িটি| তারপর বনগাঁ হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার এবং ফায়ার ব্রিগেডের প্রচেষ্টায় অবশেষে হাঁড়িটি বের করা হয়েছে কেটে| সুস্থ আছে ছোট্ট দেবরাজ|

আরো পড়ুন-ত্রিপুরায় তৃণমূল কর্মী ও সাংবাদিকদের উপর আক্রমণের প্রতিবাদে সরব ব্যারাকপুরের আইনজীবীরা

এ বিষয়ে তাঁর মা অনিতা সরকার বলেন,”আমি তখন ঘরে ছিলাম না, ও খেলা করছিল, তার পরেই আমি ঘরে এসে দেখি ওর মাথায় হাঁড়িটি আটকে রয়েছে|বাড়িতে আমরা চেষ্টা করা সত্ত্বেও হাড়ি বের করতে পারিনি, তারপর আমরা বনগাঁ হাসপাতালে নিয়ে যায়|সেখানকার ডাক্তারবাবুর এবং ফায়ার বিগেট এর প্রচেষ্টায় দীর্ঘ এক ঘন্টা পর অবশেষে হাড়ি কেটে বাচ্চা কে সুস্থ ভাবে বের করা হয়|”

আরো পড়ুন-বিশ্ব বাংলা গেটের কাছে এবার তৈরি হলো NKDA-র নিজস্ব কমিউনিটি সেন্টার

এ বিষয়ে বনগাঁ ফায়ার বিগেট স্টেশন অফিসার শম্ভু কুন্ডু বলেন, “হাসপাতাল থেকে আমাদের কাছে খবর যায় সঙ্গে সঙ্গে আমরা দেরি না করে ছুটে আসি এবং প্রায় দীর্ঘ এক ঘণ্টার চেষ্টায় অবশেষে বাচ্চার মাথা থেকে হাড়ি কেটে বের করে,|সুস্থ-স্বাভাবিকভাবে বাচ্চাকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিতে পেরে আমরা খুশি|”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *