‘বাঙালের হাতে বাঙালী খাবার খেতে হলে আসতে হবে…’ ভাইরাল ভাতের হটেলের নন্দিনী!

সোশাল মিডিয়ার যুগে কোনও কিছুউ ভাইরাল হতে সময় লাগেনা….কি মন্দ,কি ভাল!তাতে লাভ হয়ে কিছু মানুষের আবার ক্ষতিও হয়ে অনেকের|তবে কয়েকদিন যাবৎ সোশাল মিডিয়ায় একটি মুখের সাথে পরিচিতি হয়ে গিয়েছে প্রায় সকলেরই|সেই মুখ হল বি বা দি বাগেক রাস্তার উপরের ভাতের হটেল খ্যাত মমতা ওরফে নন্দিনী গঙ্গোপাধ্যায়|

আরো পড়ুন-রোগী মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে!পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ

মিলেনিয়াম পার্কের ঠিক উলটোদিকে বিবাদি বাগের অফিস চত্বরে হল নন্দিনীর পাইস হোটেল|হোটেল ম্যানেজমেন্ট নিয়ে পড়াশোনা করেছেন নন্দিনী। এরপর গুজরাটে শেফ-এর চাকরি করতেন।কিন্তু লকডাউন বদলে দেয় তার এবং তার পরিবারের ভাগ্য|নন্দিনীর বাবা-মা এই ভাতের হোটেলটি চালাতেন|নন্দিনীর বাবার একজন সাহায্যকারীর প্রয়োজন ছিল। তাই সে সময় আর কিছু না ভেবে বাবার কাছে ছুটে আসে মেয়ে। তারপর থেকে নিজেই এই দোকানের দায়িত্ব নিয়ে নিয়েছে নন্দিনী।

আরো পড়ুন-ভরা বাজারে ব্যবসায়ী ও তার ভাইকে এলোপাথাড়ি ধারালো অস্ত্রের কোপ,আক্রমণকারীকে গণধোলাই

মেনুতে থাকে ভাত,মুগের ডাল,বেগুন ভাজা,কড়োলা ভাজা,মাছের ঝোল,চিকেন এবং সপ্তাহে দুদিন থাকে মটনও|নিজেই রান্না করছেন,পরিবেশন করছেন আবার তার পাশাপাশি ইউটিউবার বা ব্লগারদের সাথে কথাও বলছেন|মুখে রয়েছে সমসময় হাসি|তার বয়সী অন্য মেয়েরা বা ছেলেরা যখন নিজেদের কেরিয়ার তৈরি করতে দেশ-বিদেশে পারি দিচ্ছে|তখন এই তরুণী বেঁছে নিল বাইরে থেকে এসে নিজের মা-বাবার পাশে দাড়ানো|আমরা কামনা করব মমতা ওরফে নন্দিনীর এই সিদ্ধান্ত তার এবং তার পরিবারের জন্য অনেক সাফল্য আনুক|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *