দিল্লির শ্রদ্ধা হত্যাকাণ্ডের আদলে ফের এক খুন!উত্তরপ্রদেশে স্ত্রীকে খুন করে টুকরো করল স্বামী

দিল্লির শ্রদ্ধা হত্যাকাণ্ড সবাইকে নাড়িয়ে দিয়ে গিয়েছে|বিয়ের জন্য বারংবার চাপ দেওয়ার কারনে প্রেমিকাকে শ্বাসরোধ করে খুন করে তাঁর দেহ টুকরো টুকরো করে ফেলে প্রেমিক|আবার সেই টুকরো রাতের অন্ধকারে দিল্লীর বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে ফেলে দেয়|এই হাড়হিম করা ঘটনা গোটা দেশকে বিস্মিত করে দিয়ে যায়|এবার দিল্লির শ্রদ্ধা হত্যাকাণ্ডের আদলে ফের এক খুন উত্তরপ্রদেশে।

আরো পড়ুন-‘বিমানদা, আপনি পিছনে কেন?সামনে আসুন’,নিজে হাতে চেয়ার তুলে এনে বসালেন মুখ্যমন্ত্রী

সীতাপুরের বাসিন্দা জ্যোতি ওরফে স্নেহা ড্রাগের নেশা করতেন। একাধিক বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কেও জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। পরকীয়ার সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার সন্দেহেই স্ত্রীকে খুনের ছক কষেছিল অভিযুক্ত স্বামী পঙ্কজ মৌর্য।পঙ্কজ পুলিশকে জানায়,১০ বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। কিন্তু, বর্তমানে সম্পর্কে একাধিক জটিলতা তৈরি হয়েছিল বলেও পুলিশকে জানিয়েছে অভিযুক্ত। এখানেই শেষ নয়, পঙ্কজের স্বীকারোক্তি, স্ত্রীকে খুন করে তাঁর পরিচয় গোপন করতেই সে দেহের টুকরো টুকরো করে ফেলে।তবে অবশেষে পুলিশের হাতে ধরে পরে সে|

আরো পড়ুন-সুন্দরপুর এলাকা থেকে সাতটি বালির ট্রাক্টর আটক করল কান্দি মহকুমা শাসক

গত ৮ নভেম্বর স্মেহার দেহাংশ, হাড়গোড় উদ্ধার করে সীতাপুর থানার পুলিশ। এরপরই তদন্তে নামে পুলিশ।নিজে মুখেই এই নৃশংস হত্যার কথা স্বীকার করেছে পঙ্কজ।তারপর গ্রেফতার করা হয় জ্যোতির স্বামী পঙ্কজ মৌর্যকে। তাকে এই হত্যাকাণ্ডে সহায়তা করার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছে দুর্জন পাসি নামে জনৈক ব্যক্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *